বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৩:৩০ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
যায়যায়দিন পত্রিকার ব‌রিশাল ব্যুরো অ‌ফিসের রিপোর্টার হলেন এম.জাহিদ কাঠালিয়ায় অন্ত:জেলা ডাকাত দলের সর্দার অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার ঝালকাঠি-নলছিটিতে ডিবি পুলিশের অভিযানে গাঁজাসহ দুই জন আটক নলছিটিতে গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী রাসেল আটক বেপরোয়া অটোরিকশার দখলে বরিশাল নগরী : যানজটে নাকাল সাধারন মানুষ বরিশালের দু’চিকিৎসকের বিচার দাবীতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে স্বজনদের অভিযোগ কৃষি ব্যাংক বরিশাল শাখায় হালখাতা অনুষ্ঠিত দপদপিয়ায় দারুস সায়া’দ কারামতিয়া খানকা শরীফের ওয়াজ-মাহফিল সম্পন্ন বরিশালে পুলিশের অভিযানে অনলাইনে পতিতা সাপ্লাইকারি আটক ইউনাইটেড মাধ্যমিক বিদ্যালয় অভিভাবক সদস্য পদে নির্বাচন ২ মে
একযুগ পার হলেও হয়নি বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের কমিটি

একযুগ পার হলেও হয়নি বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদক:: বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার এক দশক পার হলেও কমিটির মুখ দেখেনি শাখা ছাত্রলীগ। অথচ পুরোটা সময় ক্ষমতায় ছিল আওয়ামী লীগ। ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটি কর্তৃক সাংগঠনিক ইউনিট হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়া সত্ত্বেও কমিটি না থাকায় ক্ষোভ ও হতাশা বিরাজ করছে নেতা-কর্মীদের মধ্যে।

২০১২ সালের ১ জুলাই বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হয় উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি। দীর্ঘ সময় ধরে কোন কমিটি না থাকার কারণে শাখা ছাত্রলীগ সঠিক নেতৃত্ব পাচ্ছে না, এভাবে চলতে থাকলে এই বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগ একসময় নেতৃত্বশূন্য হয়ে যাবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। তবে ২০১৯ সালের ১৭ জুন এই বিশ্ববিদ্যালয়ে সংক্ষিপ্ত এক সফরে এসেছিলেন তৎকালীন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। সে সময় তিনি ঘোষণা দিয়েছিলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ১১১তম সাংগঠনিক ইউনিট হবে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়।

এরপর বিভিন্ন সময়ে এমন আশার বাণী শুনলেও গঠন হয়নি কমিটি। ফলে কমিটি গঠন না হওয়ায় হতাশ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ কর্মীরা। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের দুটি গ্রুপ সক্রিয়। একটি হল: সদর আসনের সংসদ সদস্য জাহিদ ফারুক শামীমের অনুসারী অপরটি বরিশাল সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ’র অনুসারী।

তবে সাম্প্রতিককালে সাদিক আবদুল্লাহ’র অনুসারীদের ক্যাম্পাসে তেমন একটা দেখা যায় না। তবে জাহিদ ফারুক শামীম ও বিসিসি’র নৌকা মার্কার মেয়র প্রার্থী খোকন সেরনিয়াবাতের অনুসারী ববি ছাত্রলীগ নেতা অমিত হাসান রক্তিম, মুয়ীদুর রহমান বাকি তাদের সকল কর্মীদের নিয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী, বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন, স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসসহ বিভিন্ন জাতীয় দিবস পালন করে আসছে ছাত্রলীগের ব্যানারে।

এমনকি বিভিন্ন দলীয় প্রোগ্রামে অন্যান্য সাংগঠনিক ইউনিটের মতোই কার্যক্রম পরিচালনা করতে দেখা যায়। বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় কয়েকজন ছাত্রলীগ কর্মী জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতাকর্মীরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শে দীর্ঘদিন ক্যাম্পাসে রাজনীতি করে আসছে। বিভিন্ন জাতীয় ও সাংগঠনিক প্রোগ্রামে তারা অংশগ্রহণ করছে।

তাহলে কেনো এখনো কমিটি হচ্ছেনা! একটা বিভাগীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের কমিটি নেই এটা বেশ দুঃখজনক। তারপরও আমরা আশায় বুক বেধে আছি, ইনশাআল্লাহ কমিটি হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা’র হাতকে শক্তিশালী করার জন্যে এই বিশ্ববিদ্যালয়েরও কমিটির প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম।

সংবাদটি শেয়ার করুন ...




© All rights reserved DailyAjkerSundarban