বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০২:৩৪ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
যায়যায়দিন পত্রিকার ব‌রিশাল ব্যুরো অ‌ফিসের রিপোর্টার হলেন এম.জাহিদ কাঠালিয়ায় অন্ত:জেলা ডাকাত দলের সর্দার অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার ঝালকাঠি-নলছিটিতে ডিবি পুলিশের অভিযানে গাঁজাসহ দুই জন আটক নলছিটিতে গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী রাসেল আটক বেপরোয়া অটোরিকশার দখলে বরিশাল নগরী : যানজটে নাকাল সাধারন মানুষ বরিশালের দু’চিকিৎসকের বিচার দাবীতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে স্বজনদের অভিযোগ কৃষি ব্যাংক বরিশাল শাখায় হালখাতা অনুষ্ঠিত দপদপিয়ায় দারুস সায়া’দ কারামতিয়া খানকা শরীফের ওয়াজ-মাহফিল সম্পন্ন বরিশালে পুলিশের অভিযানে অনলাইনে পতিতা সাপ্লাইকারি আটক ইউনাইটেড মাধ্যমিক বিদ্যালয় অভিভাবক সদস্য পদে নির্বাচন ২ মে
হিজলায় পুলিশ সদস্যদের ওপর’ মৎস্য অধিদপ্তরের অতর্কিত হামলা

হিজলায় পুলিশ সদস্যদের ওপর’ মৎস্য অধিদপ্তরের অতর্কিত হামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক:: বরিশালের হিজলা উপজেলায় মৎস্য অধিদপ্তরের হামলার শিকার হয়েছেন হরিনাথপুর ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ আব্দুর রহিম’সহ অন্যান্য সদস্যরা। বৃহস্পতিবার (৪ এপ্রিল) বিকেলে হামলার ঘটনাটি ঘটে।

হিজলা হরিনাথপুর ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ আব্দুর রহিম জানান, মৎস্য অধিদপ্তর ও নৌ-পুলিশের সদস্যরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নৌ-পুলিশের সদস্যদের সহযোগিতায় মৎস্য অধিদপ্তরের লোকজন হরিনাথপুর পুলিশ ফাঁড়ি সংলগ্ন এলাকায় একটি বাড়িতে অভিযানে যায়। সেখানে গিয়ে কোনো পুরুষ পেয়ে বাড়ির নারী সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে এক বস্তা অবৈধ জাল পায় অভিযানিক দল।

সপ্তাহ আগে হিজলা ফাঁড়ি পুলিশের সদস্যরা অবৈধ জাল নিয়ে গেছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে হিজলা উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলম আমাকে ঘটনাস্থলে আসতে বলে। কাছাকাছি হওয়ায় অল্প সময়ের মধ্যেই আসি। অভিযানিক দলের সদস্যরাও আমার কাছে এ বিষয়ে জানতে চান। আমি মৎস্য কর্মকর্তাকে বলি আমাদের পুলিশ সদস্যরা গত দুই বছরেও কোন অভিযানে আসেনি জাল নেয়া তো দূরের কথা।

এতে স্থানীয়রা একাত্মতা প্রকাশ করে মৎস্য কর্মকর্তার সম্মুখে বলেন, স্যারেরা কোন অভিযানে আসেনি ও জাল নিয়ে যায়নি। তাতে ক্ষিপ্ত হয়ে যান মৎস্যকর্মকর্তা দেখে নেয়ার হুমকি প্রদান করেন ও সদস্যরা একপর্যায়ে আমাদের পুলিশ সদস্যদের গালাগাল শুরু করেন এবং সবার সঙ্গে খারাপ আচরণ করেন। মৎস্য কর্মকর্তা পরিস্থিতি শান্ত করেন। ঘটনাস্থল থেকে হিজলা থানা পুলিশের (ওসি) জুবাইর আহমেদকে ঘটনা বলি তিনি আমাকে থানায় আসতে বলেন।

এরপর ঘটনাস্থল থেকে হিজলা সদরে চলে আসার পথে আমাদের যানবাহনের গতিরোধ করে মৎস্য কর্মকর্তার নেতৃত্বে মাঠকর্মী হানিফ, মাঝি সাইদুল, ইয়াসিন’সহ বেশ কয়েকজন তেরে এসে আমার সদস্যদের অক্ষত ভাষায় গালাগাল করেন। তার প্রতিবাদ করতে গেলে একপর্যায়ে আমি’সহ সদস্যদের মারধর করেন।

এ বিষয়ে হিজলা উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলম বলেন, আমাদের সদস্যদের সাথে তাদের বাকবিতণ্ডা ও হাতাহাতি হয়েছে তবে কোন হামলার ঘটনা ঘটেনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন ...




© All rights reserved DailyAjkerSundarban